--- বিজ্ঞাপন ---

মার্কিন-ইসরাইল সন্ত্রাসবাদের মূল শেকড়: রুহানি

0

নিউজ ডেস্ক: আত্মঘাতী হামলায় দায়ী ভাড়াটে খুনিদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। বুধবার দেশটির সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে আত্মঘাতী হামলায় অভিজাত বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর ২৭ সেনা নিহত হয়েছেন। এ হামলার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের সন্ত্রাসবাদের সমর্থনকে অভিযুক্ত করেছেন রুহানি।

রুহানি বলেন, ভাড়াটে খুনিদের কাছ থেকে আমাদের শহীদদের রক্তের বদলা আদায় করবই। এ অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদের মূল শেকড় হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইহুদিবাদী ইসরাইল।

সোচিতে ত্রিপক্ষীয় সম্মেলনে যোগ দিতে মেহরাবাদ বিমানবন্দর থেকে রাশিয়ার উদ্দেশে উড়াল দেয়ার আগে তিনি এসব কথা বলেন।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিতে প্রতিবেশী দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ইরানে হামলা চালাতে আপনাদের মাটি সন্ত্রাসীদের ব্যবহার করতে দেবেন না।

এর আগে ইরানের অভিজাত বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর এক জ্যেষ্ঠ কমান্ডার বলেছেন, আত্মঘাতী হামলায় ২৭ সেনা নিহত হওয়ার জবাব কেবল দেশের ভেতরেই সীমিত থাকবে না।

সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে আত্মঘাতী হামলা এ যাবতকালের মধ্যে বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর ওপর সবচেয়ে বড় আঘাত।

কমান্ডার আলী ফাদাভি বলেন, ইসলামী বিপ্লবের প্রতিরক্ষায় আমাদের পদক্ষেপ সীমান্তের মধ্যেই সীমিত থাকবে না। আগের মতোই বিপ্লবী গার্ডসের পক্ষ থেকে শত্রুদের কঠোর জবাব দেয়া হবে।

প্রদেশটিতে সম্প্রতি সুন্নি মুসলিম সংখ্যালঘুদের হামলা ও হতাহত সংখ্যা বাড়ছেই।

আধা সরকারি সংবাদ সংস্থা ফারসের খবরে বলা হয়েছে, সুন্নি গোষ্ঠী জইশ আল আদল হামলার দায় স্বীকার করেছে।

সংখ্যালঘু বালুচিসদের জন্য অধিকতর উন্নত জীবন ও বেঁচে থাকার সুন্দরের পরিবেশের জন্য লড়াই করার দাবি করছে জইশ আল আদল।

আপনার মতামত দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.