--- বিজ্ঞাপন ---

রাঙ্গুনিয়ায় ভোটের লড়াইয়ে দুপ্রার্থী, আগ্রহ নেই ভোটারদের

0

নিউজ ডেস্ক: রাঙ্গুনিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে শুধুমাত্র ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুই প্রার্থী লড়ছেন। তাঁরা দুইজনই একই ইউনিয়নের বাসিন্দা। তাঁরা হলেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা ইসলামী ফ্রন্ট’র যুগ্ম সম্পাদক মো. আকতার হোসেন (মোমবাতি) ও চট্টগ্রাম উত্তরজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম (তালা)। তাঁদের বাড়ি মরিয়ম নগর ইউনিয়নে।
এর আগে লিখিতভাবে সাংবাদিকদের জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান দক্ষিণ রাজা নগর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফজলুল ইসলাম (উড়োজাহাজ) ও চট্টগ্রাম উত্তরজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সহসভাপতি শাহাদাত হোসেন তালুকদার (টিয়া পাখি)। ১১ মার্চ ও ১২ মার্চ নির্বাচনী প্রচারণা স্থগিত করে তারা দু’জনই ভোটের লড়াই থেকে সরে দাঁড়ান। তবে সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাসুদুর রহমান বলেন, “ নির্বাচন কারা সরে দাঁড়ালো তা আমাদের দেখার বিষয় না। ভাইস চেয়ারম্যান পদে একটি ব্যালটে চার প্রার্থীর প্রতীক থাকবে। ভোট সুষ্ঠু করতে পুলিশ-আনসারের পাশাপাশি বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন থাকবে। এছাড়া ৫ জন নির্বাহী হাকিম(ম্যাজিস্ট্রেট) নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবেন। ”
এবার চেয়ারম্যান পদে বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আ.লীগ সভাপতি খলিলুর রহমান চৌধুরী ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন উপজেলা মহিলা আ.লীগের সহসভাপতি মনোয়ারা বেগম। শুধু ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
শুধুমাত্র একটি পদে নির্বাচন হওয়ায় ভোটারদের মাঝে তেমন আগ্রহ নেই। বিএনপির দাবি ভোটের মাঠে বিএনপি না থাকায় সাধারণ ভোটারদের মাঝে ভোটের প্রতি তেমন আগ্রহ নেই। জানতে চাইলে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক শওকত আলী নূর বলেন, “ নির্বাচনে অংশ নেয়ার মতো পরিবেশ নেই। তাই দলীয় সিদ্ধান্তে কেউ নির্বাচনে অংশ নেয়নি। ভোটে বিএনপিসহ সব দল অংশগ্রহন না করায় ভোটারদের তেমন আগ্রহ নেই। ” কুলকুরমাই এলাকার বাসিন্দা কাবুল বড়ুয়া (৩৮) ও আবু হোসেন (৫৫) নামে দুই ভোটারকে জিজ্ঞেস করলে তারা ভোট কয় তারিখ হবে তাও জানেন না। সৈয়দবাড়ি এলাকার বাসিন্দা মো. মাহাবুব বলেন, “ভোটে সব পদে নির্বাচন হচ্ছেনা। সেজন্য ভোট দিতেও ইচ্ছে হচ্ছেনা। ” জানতে চাইলে উপজেলা আ.লীগ সভাপতি খলিলুর রহমান চৌধুরী বলেন, “দলের বর্ধিত সভায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শফিকুল ইসলামকে দল থেকে সমর্থন দেয়া হয়। দল থেকে এই পদে কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি, তাই দলীয় প্রতীক না পেলেও দল সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে তার পক্ষেই নেতাকর্মীদের কাজ করতে হবে। ”
জানতে চাইলে উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক করিম হাছান বলেন, “ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আকতার হোসেনকে দল থেকে সমর্থন দেয়া হয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে অবশ্যই শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বাচনে লড়বেন। ” উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ৮৮ কেন্দ্রের ৪৪৩ টি বুথে ৮৮ জন প্রিজাইডিং, ৫৯০ জন সহকারি প্রিজাইডিং ও ১১৮০ জন পোলিং কর্মকর্তা নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবেন। উপজেলায় ভোটার রয়েছে ২ লাখ ৫৩ হাজার ২০৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩১ হাজার ২১০ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ২১ হাজার ৯৯৮ জন।
১৫ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ৮৮ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৫০ টি কেন্দ্রকে “অধিক গুরুত্বপূর্ন” হিসেবে চিহ্নিত করেছে থানা পুলিশ। এছাড়া ১০ টি “গুরুত্বপূর্ন ও ২৮ টি “সাধারণ” হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। “অতি গুরুত্বপূর্ন” কেন্দ্রগুলোতে ভোট গ্রহনের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভুঞা বলেন, উপজেলার ৮৮ টি কেন্দ্রের মধ্যে ৫০ টি কেন্দ্রকে “অধিক গুরুত্বপূর্ন” হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে ভোট গ্রহনের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। ” 

আপনার মতামত দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.